একসঙ্গে সাত নবজাতকের জন্ম

ছোট্ট সংসার চেয়েছিলেন ইরাকি নাগরিক ইউসুফ ফিদল, কিন্তু বিধিবাম হলে যা হয়। চতুর্থ সন্তানের জন্মদিতে দিয়ে তার স্ত্রীর গর্ভে একসঙ্গে জন্ম নিয়েছে সাত সন্তান। তাদের মধ্যে রয়েছে ছয় মেয়ে ও এক ছেলে। সব মিলিয়ে ইউসুফ দম্পতির সন্তানের সংখ্যা এখন ১০।

সংবাদমাধ্যম ডেইলি মিরর তার স্ত্রীর নাম প্রকাশ না করে জানিয়েছে, পূর্ব ইরাকের দিয়ালি এলাকার একটি হাসপাতালে ২৫ বছর বয়সী এক নারীর গর্ভে একসঙ্গে সাত সন্তানের জন্ম হয়েছে।

স্থানীয় স্বাস্থ্য বিভাগের একজন মুখপাত্র জানিয়েছে, স্বাভাবিকভাবেই ওই সাত সন্তানের জন্ম হয়েছে এবং সাত সন্তান ও তাদের মা এখন সুস্থ আছেন। এছাড়া কয়েকটি জমজ বাচ্চার ছবিও প্রকাশ করা হয়েছে ডেইলি মেইলে।

কয়েকদিন আগেই লেবাননের সেন্ট জর্জ ইউনিভার্সিটি হাসপাতালে এক মায়ের একসঙ্গে ছয় সন্তান জন্ম দেওয়ার কয়েকদিন পর এবার একসঙ্গে সাত সন্তান জন্ম দেওয়ার ঘটনা বেশ আলোড়ন তুলেছে।

এর আগে ১৯৯৭ সালে যুক্তরাষ্ট্রের আইওয়া অঙ্গরাজ্যের কেনি ও ববি দম্পতির ঘরে প্রথমবারের মতো একসঙ্গে সাত সন্তান জন্ম নেওয়ার খবর পাওয়া যায়।

আপনি দেখেছেন কি?

সৌদি যুবরাজই খাসোগি হত্যার নির্দেশদাতা: সিআইএ

সৌদি ক্রাউন প্রিন্স মোহাম্মাদ বিন সালমানের নির্দেশেই সাংবাদিক জামাল খাসোগিকে হত্যা করা হয়েছিল বলে জানিয়েছে …

Optimization WordPress Plugins & Solutions by W3 EDGE