ফেসবুক পেজে লাইক দিয়ে সাথে থাকুন

পোষা পাখীর জন্য ২ কান কেটে ভালবাসা প্রকাশ!

অনলাইন ডেস্কঃ পোষা প্রাণির জন্য পাগল এমন মানুষ আমরা অনেক দেখেছি। তাই বলে পোষ্যর জন্য একেবারে দুই কান কাটা ভালবাসা দেখেছেন কখনও? হ্যাঁ, আক্ষরিক অর্থেই দু’কান কাটা। ভিডিওটি দেখে নিনঃ-

প্রিয় টিয়া পাখির জন্য যা খুশি করে ফেলতে পারেন ৫৬ বছরের টেড রিচার্ডস। প্রথমে মুখে, তারপর দুই চোখের তারায় ট্যাটু করিয়ে ফেলেন যাতে তাঁকে টিয়ার মতোই দেখতে লাগে। তাতেও আশ মিটছিল না। মাথার পাশের দুটো কান যেন বড়ই বেখাপ্পা। তাই অস্ত্রোপচার করে কান দুইটা কেটে ফেলেছেন রিচার্ডস!

কান কাটার পর উচ্ছ্বসিত রিচার্ডস বলেন, ‘‘আমি খুব খুশি। সারাদিন আয়না দেখেই চলেছি। দারুণ
লাগছে দেখতে। একদম আমার টিয়ার মতো।’’ কান কেটে ফেলার পর এবার অস্ত্রোপচার করে নাকের জায়গায় বাঁকানো ঠোঁট বসানোর কথা ভাবছেন রিচার্ডস!

পোষ্য প্রেমিক রিচার্ডসের সারা শরীরে রয়েছে ১১০টা ট্যাটু। ৫০টি জায়াগায় বিঁধিয়ে নিয়েছেন। সবগুলোই তাঁর প্রিয় পোষ্য এলি, তিয়াকা, তিয়েমে, জেক আর বুবির অনুকরণে।

যুক্তরাজ্যের ব্রিস্টলের হার্টক্লিফের বাড়িতে পোষা চার টিয়ার সঙ্গে থাকেন জুতোর কারখানার কর্মী রিচার্ডস। প্রথম ট্যাটু করেন ১৯৭৬ সালে। এলি ও তিয়াকা, এই দুই পোষা ম্যাকাওয়ের পালকের রঙে রাঙিয়ে নিয়েছেন নিজের মুখ।

কে করলেন কান ওড়ানোর মতো এই ভয়াবহ অস্ত্রোপচার? কিছুতেই চিকিত্সকের নাম জানাতে চাননি রিচার্ডস। এই অস্ত্রোপচার কি আদৌ বৈধ? ব্রিটিশ প্লাস্টিক সার্জন মার্ক প্যাসিফিও বলেন, ‘‘অত্যন্ত ভয়ানক এই অস্ত্রপচার। কীভাবে কেউ এমন ভয়বাহ কাজ করতে পারেন সেটাই আশ্চর্যের। দুঃখের বিষয় আমাদের মতো চিকিত্সকরা এই সব অস্বাভাবিকতাকে আমল দেন।’’

ফেসবুক পেজে লাইক দিয়ে সাথে থাকুন
Optimization WordPress Plugins & Solutions by W3 EDGE