বাবা মারা গেলে নাতি কি দাদার সম্পত্তির ওয়ারিশ হবে?

নামাজ, রোজা, হজ, জাকাত, পরিবার, সমাজসহ জীবনঘনিষ্ঠ ইসলামবিষয়ক প্রশ্নোত্তর অনুষ্ঠান ‘আপনার জিজ্ঞাসা’। শরীফ বায়জীদ মাহমুদের উপস্থাপনায় বাংলাদেশের একটি বেসরকারি টিভি চ্যানেলের জনপ্রিয় এ অনুষ্ঠানে দ‍র্শকের বিভিন্ন প্রশ্নের উত্তর দেন বিশিষ্ট আলেম ড. মুহাম্মদ মতিউল ইসলাম।

এবারে তাকে প্রশ্ন করা হয়েছে বাবা মারা গেলে তার সন্তানরা দাদার সম্পত্তির ওয়ারিশ হবে কি না।

প্রশ্নটি হচ্ছে, বাবা বেঁচে থাকা অবস্থায় সন্তান মারা গেলে মৃত সন্তান যদি কোন ছেলেমেয়ে রেখে যায়, তাহলে উক্ত এতিম সন্তানরা ইসলামী শরিয়া এবং প্রচলিত আইনে মৃত ব্যক্তির বাবার সম্পত্তির ওয়ারিশ হবে কি?

উত্তরে বিশিষ্ট আলেম ড. মুহাম্মদ মতিউল ইসলাম বলেন, মৃত ব্যক্তির বাবার সম্পত্তির মধ্যে তাদের ওয়ারিশ হওয়ার প্রশ্নই আসে না। অর্থাৎ দাদার সম্পত্তির ওয়ারিশ হওয়ার প্রশ্নই আসে না। কারণ, পিতা না থাকার কারণে দাদার সঙ্গে তাদের যে সম্পর্ক রয়েছে,

সেখানে ছেদ ঘটে গেছে। এ জন্য তারা এইসব দাদার সম্পত্তির ওয়ারিশ হবে না। ইসলামী শরিয়ার বিধান ওটাই। তবে আমাদের প্রচলিত আইনে এটাকে অন্য ধরনের একটা ফয়সালা করা হয়েছে।

প্রচলিত আইন অনুসারে যদি তারা কার্টের মাধ্যমে আপিল করে, দেখা যায় যে তাদের ওয়ারিশ করার বিষয়টি প্রচলিত আইনে উল্লেখ করা হয়েছে এবং কোথাও কোথাও তারা শেষ পর্যন্ত হক আদায় করে নিয়েছে।

কিন্তু ইসলামী শরিয়াহ অনুযায়ী তারা ওয়ারিশ হওয়ার কোন বিধান নেই, কারণ মৃত ব্যক্তির যারা ওয়ারিশ হবে, মৃত ব্যক্তির সঙ্গে তাদের সরাসরি সম্পর্ক থাকতে হবে। সরাসরি সম্পর্ক না থাকলে ওয়ারিশ হওয়ার প্রশ্নই আসে না।

তবে এ ক্ষেত্রে শরিয়াহ অনুযায়ী মৃত ব্যক্তির সন্তানদের জন্য দাদা তাঁর সম্পত্তি দান করে দিতে পারেন। ইসলামে ওসিহতের ব্যবস্থা রয়েছে। তিনি ওসিহত করে দিতে পারেন।

আপনি দেখেছেন কি?

নবী-রাসুলরা কে কোন পেশায় ছিলেন?

ইসলাম ধর্মে, রাসুল হলেন আল্লাহ্ প্রেরিত বার্তাবাহী ব্যক্তিত্ব। রাসূল বলতে তাদেরকেই বোঝানো হয় যারা আল্লাহ্‌র …

Optimization WordPress Plugins & Solutions by W3 EDGE