fbpx

সাবেক তিন আইজিপির কার কতদিন সাজা

২০০৪ সালের ২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলা মামলায় সাবেক স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী লুৎফুজ্জামান বাবরসহ ১৯ জনের মৃত্যুদণ্ডের আদেশ দিয়েছেন ট্রাইব্যুনাল। এছাড়া বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানসহ ১৯ জনের যাবজ্জীবনের আদেশ দেয়া হয়েছে। বিভিন্ন মেয়াদে আরও ১১ জনকে দণ্ড দিয়েছেন আদালত।

ওই ১১ জনের মধ্যে পুলিশের তিনজন মহাপরিদর্শক (আইজিপি) রয়েছেন। তারা হলেন- শহুদুল হক, মোহাম্মদ আশরাফুল হুদা ও খোদাবক্স চৌধুরী।

বুধবার সাবেক কেন্দ্রীয় কারাগারের পাশে অবস্থিত ঢাকার ১নং অস্থায়ী দ্রুত বিচার ট্রাইব্যুনালের বিচারক শাহেদ নুর উদ্দিন এ রায় ঘোষণা করেন

শহুদুল হক : গ্রেনেড হামলার সময় পুলিশ প্রধান ছিলেন শহুদুল হক। কারাগারে আছেন তিনি। দুই বছরের কারাদণ্ড হয়েছে তার। গ্রেনেড হামলা হওয়ার পর শহুদলের ভূমিকা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছে রাষ্ট্রপক্ষ। কারণ হামলার পর ঘটনাস্থল একবারও পরিদর্শন করেননি তিনি।

শহুদুল হক এক সময় সেনা কর্মকর্তা ছিলেন। পরে তাকে পুলিশ বাহিনীতে অন্তর্ভুক্ত করেন রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমান। ২০০১ সালে বিএনপি সরকার ক্ষমতায় আসার পর শহুদুলকে পুলিশ প্রধানের পদে চুক্তিভিত্তিক নিয়োগ দেয়া হয়।

বিএনপি সরকারের সময় পুলিশ প্রধান পদে খুব বেশি দিন থাকতে পারেননি তিনি। আদালত অবমাননার দায়ে তাকে সে পদ ছাড়তে হয়েছিল। ২০০৩ সালের এপ্রিল মাস থেকে ২০০৪ সালের ডিসেম্বর মাস পর্যন্ত, অর্থাৎ এক বছর আট মাস পুলিশ প্রধানের দায়িত্বে ছিলেন তিনি।

আশরাফুল হুদা : গ্রেনেড হামলার সময় ঢাকার মেট্রোপলিটন পুলিশের কমিশনারের দায়িত্বে ছিলেন আশরাফুল হুদা। তাকে দেয়া হয়েছে দুই বছরের কারাদণ্ড। ২০০৪ সালের ১৫ ডিসেম্বর থেকে ২০০৫ সালের ৭ এপ্রিল পর্যন্ত অর্থাৎ চার মাসেরও কম সময় পুলিশ প্রধানের দায়িত্বে ছিলেন তিনি।

খোদাবক্স চৌধুরী : আরেক সাবেক পুলিশ প্রধান খোদাবক্স চৌধুরীর সাজা হয়েছে বেশি, তিন বছরের কারাদণ্ড। তিনি গ্রেনেড হামলার সময় অতিরিক্ত পুলিশ প্রধানের দায়িত্বে ছিলেন। পরে হন পুলিশ প্রধান।

আপনি দেখেছেন কি?

প্রধানমন্ত্রীর কাছে মায়ের দুই কিডনি হারানোর বিচার চাইলেন রফিক

ভুল চিকিৎসায় নিজের মায়ের দুই কিডনি হারিয়ে ক্লিনিক্যালি ডেড হবার ঘটনায় প্রধানমন্ত্রীর কাছে বিচার দাবি …