সৌদি যুবরাজই খাসোগি হত্যার নির্দেশদাতা: সিআইএ

সৌদি ক্রাউন প্রিন্স মোহাম্মাদ বিন সালমানের নির্দেশেই সাংবাদিক জামাল খাসোগিকে হত্যা করা হয়েছিল বলে জানিয়েছে যুক্তরাষ্ট্রের কেন্দ্রীয় গোয়েন্দা সংস্থা সিআইএ। মার্কিন সংবাদমাধ্যম সিএনএন এ তথ্য নিশ্চিত করেছে।

সিএনএনের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, যুক্তরাষ্ট্রের উচ্চ পর্যায়ের কর্মকর্তারা জানিয়েছেন যে সৌদি যুবরাজ সালমানই খাসোগি হত্যার মূল নির্দেশদাতা ছিলেন। তুর্কি সরকারের সরবরাহকৃত অডিও রেকর্ড এবং অন্যান্য তথ্য প্রমাণের ভিত্তিতে সিআইএ বিষয়টি নিশ্চিত হয়েছে।

শুক্রবার সিআইএ-এর তদন্ত নিয়ে প্রথম প্রতিবেদন প্রকাশ করে মার্কিন সংবাদ মাধ্যম ওয়াশিংটন পোস্ট। সংবাদ মাধ্যমটি জানায়, সিআইএ যেসব তথ্য-উপাত্ত পরীক্ষা করেছে তার মধ্যে অন্যতম হচ্ছে যুবরাজ মোহাম্মাদ বিন সালমানের ছোট ভাই ও যুক্তরাষ্ট্রে নিযুক্ত সৌদি রাষ্ট্রদূত প্রিন্স খালিদ বিন সালমানের সঙ্গে খাসোগির ফোনালাপ।

ওই ফোনালাপে খালিদ খাসোগিকে ইস্তাম্বুলে গিয়ে সৌদি কনস্যুলেট থেকে বিয়ের কাগজপত্র সংগ্রহ করতে বলেন এবং এই নিশ্চয়তা দেন যে, তার কোনো ক্ষতি হবে না।

খাসোগি সৌদি কনস্যুলেট থেকে নিখোঁজ হওয়ার দুদিন পরই খালিদ যুক্তরাষ্ট্র থেকে তড়িঘড়ি করে সৌদি আরবে ফিরে যান। এরপর তাকে আর ওয়াশিংটনে ফেরত পাঠানো হয়নি। তাঁর জায়গায় নতুজন একজনকে রাষ্ট্রদূত হিসেবে নিয়োগ দেয়া হয়েছে বলে জানা গেছে।

ওয়াশিংটন পোস্ট আরও জানিয়েছে, সিআইএ বেশ কয়েকটি রেকর্ড ও ফোনালাপ বিশ্লেষণ করেছে। এরমধ্যে একটি হলো, খাসোগি হত্যাকাণ্ডের পরপরই ইস্তাম্বুলের সৌদি কনস্যুলেট থেকে করা একটি ফোনকল। ওই ফোনালাপে ঘাতক দলের সদস্য মাহের মুতরেব বলেন, অপারেশন সম্পন্ন হয়েছে।

গত ২ অক্টোবর ইস্তাম্বুলের সৌদি দূতাবাসে খুন হন সাংবাদিক জামাল খাসোগি। তিনি সৌদি যুবরাজ মোহাম্মদ বিন সালমানের কঠোর সমালোচক ছিলেন। ২০১৭ সাল থেকে তিনি স্বেচ্ছা নির্বাসনে যুক্তরাষ্ট্রে অবস্থান করছিলেন।

শুরুতে রিয়াদ তাকে হত্যার বিষয়টি প্রত্যাখ্যান করলেও পরবর্তীতে স্বীকার করে নিতে বাধ্য হয়। তবে এই হত্যাকাণ্ডে সৌদি যুবরাজ জড়িত নয় বলে বরাবরই দাবি করা আসছে তারা।

আপনি দেখেছেন কি?

অবিশ্বাস্য হলেও সত্য, তৈরি হয়েছে ‘নকল সূর্য’!

পৃথিবীতেই তৈরি হয়েছে একটি ‘নকল সূর্য’! বিষয়টি সবার কাছে বেশ অবাক লাগলেও সত্য যে, চীন …

Optimization WordPress Plugins & Solutions by W3 EDGE